logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

দাবি আদায়ে ছাত্রদলের দুই দিনের আল্টিমেটাম, বিএনপির ‘না’

বিএনপি-২

বয়সসীমা না করে ধারাবাহিক কমিটি গঠন করার দাবি মেনে নিতে বিএনপিকে দুই দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছে ছাত্রদল। এই সময়ের মধ্যে দাবি না মানলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা। তবে, তাদের দাবিকে ‘অযৌক্তি’ বলে মানা সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন ছাত্রদলের নেতারা। এই সময় সদ্য বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আসাদুজ্জামান আসাদ কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের যৌক্তিক দাবি মানতে হবে। আগামী শনিবার (২২ জুন) পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিচ্ছি। এ সময়ের মধ্যে দাবি না মানলে আগামী রবিবার (২৩ জুন) থেকে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে। এ জন্য দলের দালাল সিন্ডিকেট দায়ী থাকবে।’

রবিবার থেকে কী ধরনের কর্মসূচি আসতে পারে জানতে চাইলে ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট বলেন, ‘আমরা শনিবারও শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি পালন করবো। এরপর আমাদের দাবির সুষ্ঠু সমাধান না হলেও পরবর্তী সময়ে কর্মসূচি ঠিক করবো।’

ছাত্রদল নেতাদের এসব দাবির জবাবে বিএনপি নেতারা বলছেন, ‘বয়স্করা’ ছাত্রদল করবেন, এটা কোনও যৌক্তিক দাবি নয়। আন্দোলনকারীরা সেই অযৌক্তিক দাবিই জানাচ্ছেন। ফলে তাদের দাবি মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। তবে আন্দোলকারীদের জন্য অন্য সংগঠনগুলোতে রাজনীতি করার সুযোগ রয়েছে। তাদের উচিত, ‘অযৌক্তিক’ দাবি থেকে সরে এসে নিজেরে রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের স্বার্থে এখনই অন্য সংগঠনগুলোর রাজনীতিতে যুক্ত হওয়া।

প্রসঙ্গত, গত ৩ জুন ছাত্রদলের মেয়াদ-উত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে দিয়ে ৪৫ দিনের মধ্যে কাউন্সিলের মাধ্যমে সংগঠনটির নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। কাউন্সিলে প্রার্থী হওয়ার জন্য ২০০০ সাল-পরবর্তী যেকোনও বছরে এসএসসি/সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। আর তাদের হতে হবে বাংলাদেশের কোনও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী। কিন্তু সদ্য বিলুপ্ত কমিটির একটি অংশ এসব শর্ত বাতিল করে বয়সসীমা না করে কমিটির দাবিতে গত ১১ জুন থেকে আন্দোলন করে আসছে।

এ প্রসঙ্গে বিএনপি নেতারা বলছেন, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জানিয়ে দিয়েছেন, ছাত্রদলের বয়সসীমা না রাখার যে দাবি, তা মানা সম্ভব নয়। কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে ছাত্রদলের আগামী নেতৃত্ব বাছাই করা হবে। তবে বয়সের কারণে যারা ছাত্রদলের আগামী কাউন্সিলে প্রার্থী হতে পারবেন না, তাদের অগ্রাধিকার দিয়ে আগামীতে যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি দেওয়া হবে। ছাত্রদলের কমিটি হওয়ার পরে স্বেচ্ছাসেবক ও যুবদলের কমিটিও ভেঙে দেওয়া হবে।

এই বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘তাদের দাবি মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। যদিও আমাদের দলের কেউ কেউ তাদের আন্দোলনে উসকানি দিচ্ছেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘আন্দোলনকারীদের আমরা বুঝিয়েছি, তাদের দাবির যৌক্তিকতা নেই। সারা জীবন তারা ছাত্রদল করবেন না। ছাত্রদলের সাবেক নেতাদের কেউ কেউ আজ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, কেউ যুগ্ম মহাসচিব। ফলে সেদিকে তাদেরও তাকাতে হবে। এখন কেউ যদি কথা না শুনে আন্দোলন করে যান, তাহলে তো আমাদের কিছু করার নেই।’

এদিকে, আন্দোলনকারী ছাত্রদলের নেতারা বলছেন, রাজীব আহসান (সভাপতি) ও আকরামুল হাসান (সাধারণ সম্পাদক) নেতৃত্বাধীন সদ্য বিলুপ্ত ছাত্রদলের দুই বছরের কমিটি ছিল ৫ বছর। এ কারণে অনেক ছাত্রনেতার বয়স বেড়ে গেছে। যদি নিয়মিত কাউন্সিল হতো, তাহলে এখন যারা আন্দোলন করছেন, তারা প্রার্থী হতে পারতেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আন্দোলনকারী সদ্য বিলুপ্ত ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির একজন সহ-সভাপতি বলেন, ‘বিএনপি থেকে যদি আগামীকাল বলা হয়, আন্দোলকারীদের থেকেই স্বেচ্ছাসেবক ও যুবদলের কমিটি করা হবে, এর পরদিন থেকে আমরা কর্মসূচি থেকে সরে আসবো। না হলে দাবি আদায় পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে।’

ছাত্রদল নেতাদের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘এখন যারা ছাত্রদলের কমিটিতে জায়গা পাবেন না, তাদের তো অন্য সংগঠনে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। কিন্তু সে জন্য তো আগে তাদের এসব অযৌক্তিক আন্দোলন প্রত্যাহার করে সেসব সংগঠনের কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত হতে হবে।’

আন্দোলনকারী ছাত্রদল নেতাদের সঙ্গে সমঝোতা করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সংগঠনটির সাবেক নেতাদের নিয়ে গঠিত সার্চ কমিটিকে। সার্চ কমিটিতে আছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।
সমঝোতার বিষয়ে জানতে চাইলে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘এখনও কোনও সমাধান হয়নি। আন্দোলনকারীরা তাদের দাবিতে অনড়। ১-২ দিনের মধ্যে আমরা তাদের দাবিগুলো নিয়ে বসে আবার আলোচনা করবো। তারপর এর একটা সমাধান করবো।’ তিনি আরও বলেন, ‘আন্দোলনকারীদের বিষয়টি সমাধানের পরে ছাত্রদলের আগামী কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণা করা হবে।’

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘২-৩ দিনের মধ্যে ছাত্রদলের কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণা করা হবে।’ সেই লক্ষ্যে প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।

ছাত্রদলে বয়সসীমা না করে ধারাবাহিক কমিটি গঠনের দাবি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘নিয়মিত ছাত্ররা ছাত্রদল করবেন, একটা নিয়ম হওয়ায় উচিত। এখন যারা আন্দোলন করছেন, তাদের দাবির যৌক্তিকতা কতটুকু, তা দেখার বিষয়। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ছাত্রদলের আগামী কাউন্সিলের একটা যোগ্যতা ঠিক করে দিয়েছেন। এরপর আর কোনও কথা থাকতে পারে না।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য আরও বলেন, ‘তারেক রহমান ছাত্রদলের চলমান সংকট নিরসনে সাবেক ছাত্রনেতাদের দিয়ে কয়েকটি কমিটি করে দিয়েছেন।’ তারা সংগঠনটির বিদ্যমান সংকট সমাধানে কাজ করছেন বলেও তিনি জানান।

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO