Bangladesh
This article was added by the user . TheWorldNews is not responsible for the content of the platform.

হেলমেটের ভিন্ন ভিন্ন রঙের হওয়ার কারণ কী?

হেলমেটের ভিন্ন ভিন্ন রঙের হওয়ার কারণ কী?

 হেলমেটের ভিন্ন ভিন্ন রঙের হওয়ার কারণ কী?

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : শিল্প কারখানা বা নির্মাণাধীন কাজের ক্ষেত্রে ঝুঁকির পরিমাণ অনেক বেশি। এসব জায়গায় দুর্ঘটনা অতি পরিচিত একটি বিষয়। তাই বিশেষ করে মাথাকে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া থেকে বাঁচানোর জন্য শ্রমিকদের হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক। আকস্মিক আঘাত হোক বা সূর্যের তীব্র আলো থেকে সুরক্ষা পেতে এই হেলমেটগুলো বেশ কার্যকর। তাই এদের নাম দেয়া হয়েছে সেফটি হেলমেট।

তবে এসব হেলমেটের মধ্যে বিভিন্ন রঙ রয়েছে আবার তাদের অর্থও আলাদা। এসব রঙের অর্থ জানা থাকলে নির্মাণ কাজের জড়িত নয় এমন মানুষও জানতে পারবে এবং এইসব জায়গায় বিপদে কখন কার কাছ থেকে কোন তথ্য অভ্যাস সহায়তা পাওয়া সম্ভব। প্রতিবেদনে হেলমেটের ভিন্ন ভিন্ন রঙের সম্পর্কে আলোচনা করা হলো:

সাদা হেলমেট: সাদা রঙের সেফটি হেলমেট সাধারণত ওই কর্মক্ষেত্রে যুক্ত থাকা শীর্ষস্থানীয় বা নেতৃত্বস্থানীয় ব্যক্তিরা ব্যবহার করেন। এক্ষেত্রে সাইট ম্যানেজার, প্রকৌশলী ইত্যাদি হতে পারে। এমন লোকেদের যাতে সহজে চিহ্নিত করা যায় সেজন্য তাদের হেলমেটের রঙ সাদা।

হলুদ হেলমেট: সাধারণত কায়িক শ্রমিকদের সেফটি হেলমেটের রঙ হচ্ছে হলুদ। এই ধরনের শ্রমিকরা সাধারণত ভারী মেশিন অপারেটর করে থাকেন। এছাড়াও হলুদ রঙের হেলমেটের আরেকটি উদ্দেশ্য হচ্ছে এই শ্রমিকদের যাতে পরিশ্রমের সময় বিরক্ত না করা হয়।

কমলা হেলমেট: সাধারণত কমলা হেলমেট তারাই ব্যবহার করেন যারা প্যাকিং, গাড়ি থেকে মাল উঠানামা ইত্যাদি কাজ করে থাকেন। কাজের সময় মাল বহনকারী ক্রেন অপারেটররা যাতে তাদের সহজে খুঁজে নিতে পারেন সেজন্য এমন চোখে পড়ার মতো রঙের হেলমেট পরতে দেওয়া হয়।

নীল হেলমেট: নীল রঙের হেলমেট থেকে সাধারণত ওই কর্মীর পেশাগত অবস্থান ও দক্ষতা সম্পর্কে একটি ধারণা পাওয়া যায়। মূলত ইলেকট্রিশিয়ান, টেকনিশিয়ান বা কারিগরি ঝুটঝামেলায় যারা যুক্ত তাদের জন্য হচ্ছে নীল রঙের সেফটি হেলমেট।

সবুজ হেলমেট: সবুজ মানেই সাধারণত নিরাপদ এবং ইতিবাচক কিছু। এই রঙ দ্বারা বোঝানো হয় নতুনত্বকে। তাই হয়তো এই রং এর হেলমেট পরেন দু ধরনের কর্মীরা। সেফটি ইন্সপেক্টর বা নিরাপত্তা পরিদর্শক এবং সাইটে কাজ করতে আসা নতুন বা প্রশিক্ষণ কর্মীরা।

লাল হেলমেট: সাধারণত লাল রঙকে বিপদের সংকেত হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তাই এই ক্ষেত্রেও কোথাও আগুন লাগলে কেবল অগ্নিনির্বাপকদেরই লাল হেলমেট পরতে দেখা যায়। আপনি কেবল ফায়ার ব্রিগেডের কর্মীদেরই লাল হেলমেট পরতে দেখবেন।

এবার নিশ্চয়ই আপনি সেফটি হেলমেটের কালার কোডের সম্পর্কে একটি ধারণা পেয়েছেন। তাই যখনই আপনি কাউকে সেফটি হেলমেট পরতে দেখবেন, নিশ্চয়ই রঙ দেখে তাদের সম্পর্কে একটি ধারণা পাবেন।