Bangladesh
This article was added by the user . TheWorldNews is not responsible for the content of the platform.

জীবন বদলে দিয়েছে ভুল করে আবিষ্কার হওয়া এই জিনিসগুলো!

জীবন বদলে দিয়েছে ভুল করে আবিষ্কার হওয়া এই জিনিসগুলো!

জীবন বদলে দিয়েছে ভুল করে আবিষ্কার হওয়া এই জিনিসগুলো!

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : সকালে ঘুম থেকে উঠে টুথব্রাশ আর রাতে আলো নেভানো পর্যন্ত যেসব নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ব্যবহার করি তার অধিকাংশ কিন্তু ভাবনা চিন্তা করে তৈরি হয়নি। অন্য কোন গবেষণার ভুল ফলাফলের কারণে এই আবিষ্কারগুলি হয়েছে। তবে সেগুলি ভুল করে তৈরি হলেও আমাদের দৈনন্দিন জীবনে আমল পরিবর্তন এনে দিয়েছে।

১) একবার নিউইয়র্কের এক রেস্তোরায় রাধুনীর সাথে তুমুল ঝামেলা বেঁধেছিল এক খদ্দেরের। অভিযোগ করা হয়েছিল আলু ভাজা খুব মোটা করে কাটা হচ্ছে। পরে তারা খদ্দেরকে সন্তুষ্ট করতে ভুলবশত সরু করে আলু করে কেটে ফেলেন। তারপর তেলে ভেজে আলু ভাজা গুলি পরিবেশন বড় হয়। যার নাম রাখা হয় পটেটো চিপস।

২) রান্নাঘরের ননস্টিক প্যানের ব্যবহার আমরা সকলেই করে থাকি। এই আবিষ্কারটিও ভুলবশত হয়েছিল। এর আসল উদ্দেশ্য রান্না তৈরি করার পাত্র ছিল না। উন্নত মানের ক্লোরোফ্লোরপ কার্বন বানাতে গিয়ে উচ্চ গলনাঙ্ক বিশিষ্ট পদার্থ তৈরি হয়। এরপর এই নতুন আবিষ্কার কি কাজে লাগতে পারে তা ভাবতে গিয়ে বানানো হয় ননস্টিক প্যান।।

৩) আমরা সকলে জানি পেনিসিলিনের আবিষ্কর্তা হলেন আলেকজান্ডার ফ্লেমিং। কিন্তু এই আবিষ্কারের পিছনেও রয়েছে এক রহস্য। আসলে বিজ্ঞানী তার গবেষণায় একটি বিশেষ ব্যাকটেরিয়াকে নিয়ে গবেষণা করছিলেন। সপ্তাহ দুয়েক পর দেখলেন ব্যাকটেরিয়ার কোন বৃদ্ধি হয়নি বরং তার বৃদ্ধিরোধ করতে আরেক ছত্রাকে তৈরি হয়েছে। এরপর গবেষণা করতে গিয়ে তিনি খোঁজ পান পেনিসিলিয়াম নোটেটাম আর সেখান থেকেই বানিয়ে ফেলেন পেনিসিলিন।

৪) উচ্চ রক্ত জাতীয় ওষুধ তৈরীর সময় সংস্থাটি পরীক্ষা করে দেখে যে তা হৃদপিন্ডের উপর কোন প্রভাব ফেলেছে কিনা। কিন্তু পরীক্ষা করতে দেখা যায় তা যৌ ‘ন উদ্দীপনা বাড়াতে সাহায্য করছে। এই থেকেই ভায়াগ্রা ওষুধ তৈরি হয়।

৫) ১৮২৬ সালে জন ওয়ার্কার নামে এক ব্রিটিশ রসায়নবিদ ভুল করে দেশলাই আবিষ্কার করে ফেলেছিলেন। আসলে তার গবেষণায় বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থের সঙ্গে একটি কাঠের টুকরো মিশে যায়। পরে তাতে ঘষা লাগায় হঠাৎ আগুন জ্বলে ওঠে। এই ঘটনা দেখেই তিনি দেশলাই আবিষ্কারের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিলেন।

৬) কোকাকোলাও আবিষ্কার হয়েছিল ভুলবশত। আসলে জনৈক ফার্মাসিস্ট মাথা ব্যথার ওষুধ হিসেবে কোকা সিরাপ তৈরি করেছিলেন। পরবর্তীকালে মদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আশায় তিনি কার্বনেট মেশানো জলের সঙ্গে সোডা বানানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু পরে লক্ষ্য করে বুঝলেন সেটা কোনও সোডা নয় বরং এক বিশেষ পানীয় আবিষ্কার করেছেন।