logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh
An article was changed on the original website

মেসির রেকর্ড ভাস্বর ম্যাচে চেলসিকে উড়িয়ে দিল বার্সা

print
মেসির রেকর্ড ভাস্বর ম্যাচে চেলসিকে উড়িয়ে দিল বার্সা

নিজেদের ঘরে চেলসিকে হতাশ করেছিলেন একজনই- লিওনেল মেসি। চেলসি গোল করে এগিয়ে যাওয়ার পরও ম্যাচে বার্সেলোনাকে সমতা এনে দেওয়া গোলটি করেন আর্জেন্টাইন ক্ষুদে জাদুকর। তাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলর প্রথম লেগে প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে ১-১ গোলে ড্র নিয়ে ফিরে বার্সেলোনা। বুধবার রাতে নিজেদের মাঠে ছিল চেলসির বিপক্ষে বার্সার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় লেগের শেষ ষোলর লড়াই। ইংলিশ ক্লাবটিকে বিস্ময়কর কিছু করতে দেয়নি বার্সা। বলা ভালো লিওনেল মেসি।

রেকর্ড গড়া দুটি গোল করলেন মেসি। করালেন একটি। তাতে ৩-০ তে জয় পেল কাতালুনিয়ানরা। দুই লেগ মিলে ৪-১ ব্যবধানে জিতে শেষ আট নিশ্চিত করলো স্প্যানিশ জায়ান্টরা। মেসির দুটি ছাড়া অন্য গোলটি করেছেন ডেম্বেলে। ম্যাচের মাত্র ৩মিনিটে মেসির গোলে এগিয়ে যাওয়া বার্সার। সুক্ষ হিসেব বলতে মাত্র ২ মিনিট ৮ সেকেন্ডে গোলটি করেছেন মেসি। নিজের ফুটবল ক্যারিয়ারে এটিই মেসির দ্রুততম গোলের রেকর্ড। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ইতিহাসে সেই রেকর্ড গোলটি আবার মেসির ৯৯তম। যে গোলের পর সেঞ্চুরি ডাকছিল তাকে। সেই সেঞ্চুরি মেসি পূরণ করলেন দ্বিতীয়ার্ধে।

তবে তার আগে ২০ মিনিটে ডেম্বেলে পাইয়ে দিলেন বার্সারে জার্সীতে প্রথম গোলটি। বা-দিক দিয়ে চেলসির সিমানায় বল নিয়ে ডোকেন মেসি। দারুণ ড্রিবলিংয়ে প্রান্ত বল করে পাস দেন ডেম্বেলেকে। ডান প্রান্তে প্রায় ফাকাতেই বল পেয়ে গিয়েছিলেন তিনি। সময়ও পেয়েছেন শট নিতে। তার গতিময় সেই শট জাল খোঁজে নিতে ভুল করেনি।

গেল গ্রীষ্মে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে বার্সেলোনায় আসার পর গোল করবেন কি ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করেই পেরে উঠছিলেন না ডেম্বেলে। বার্সা খেলেছে প্রতিপক্ষের চেয়ে বল পজিশন বেশি নিজেদের কাছে রেখে। তবে চেলসিও সম্ভাবনাময় আক্রমণ রচনা করেছে বেশ কয়েকটি। ৪৩ মিনিটে যেমন মার্কো আলোনসেরা নেওয়া ফ্রি কিক পোস্টে লেগে ফিরেছে। তার আগে ৩৭ মিনিটে সম্মিলিত আক্রমণে বার্সা রক্ষণে কাপন ধরানোর পরও বল পোস্টের বাইরে মেরেছেন কান্তে।

৬৩ মিনিটে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন মেসি। ৩-০ তে এগিয়ে যায় বার্সা। চেলসির স্বপ্নও ওখানে ধুলোতে পরিণত হয়। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে এই গোলটিই মেসির গোলের সেঞ্চুরি হয়ে থাকলো। যেখানে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদোকে পিছনেও ফেললেন। লিওনেল মেসি এবং রোনালদোই শুধু চ্যাম্পিয়ন্স লিগ প্রতিযোগিতায় ১০০ গোলের কৃতিত্বের অধিকারি। ১২৩ ম্যাচে এই কীর্তি মেসির। যে রেকর্ড গড়তে রোনালদোর লেগেছিল ১৩৭ ম্যাচ। ১৪৮ ম্যাচে রোনালদোর গোল সংখ্যা ১৪৮টি।

দুর্দান্ত সব কীর্তি গড়তে মেসি কি আগে থেকেই টার্গেট করে রেখেছিলেন চেলসিকে? অথচ ক্যারিয়ারে এই চেলসির বিপক্ষে গোল করাটাই পরম আরাধ্য হয়ে গিয়েছিল তার জন্য। প্রথম লেগে যে গোলটি করেছিলেন সেটিই ছিল তার চেলসির বিপক্ষে প্রথম গোল।

টিএআর/আরজি

.

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Themes
ICO