logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

উইলিয়ামসনের বিদায়

আউট হয়ে গেছেন কেন উইলিয়ামসনলর্ডসের ফাইনালে মুখোমুখি ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা কিউইদের স্কোর ২৩ ওভারে ২ উইকেটে ১০৩।

শুরুটা ধীরে হলেও সময় গড়ানোর সঙ্গে হাত খুলছিলেন কেন উইলিয়ামসন। তাতে আরেকটি দারুণ ইনিংসের ইঙ্গিত ছিল। কিন্তু ফাইনাল মঞ্চে সেটা আর হলো না। ৩০ রান ‍করে আউট হয়ে গেছেন কিউই অধিনায়ক।

গোটা বিশ্বকাপে আলো ছড়িয়েছেন উইলিয়ামসন। দলের প্রয়োজনে লড়ে গেছেন তিনি। ফাইনালে তাই তার কাছে প্রত্যাশা ছিল অনেক। সেটা মেটানোর পথে চমৎকার ব্যাটিংয়ের প্রদর্শনীও ছিল এই ব্যাটসম্যানের। যদিও বেশিদূর যেতে পারলেন না। লিয়াম প্লাঙ্কেটের বলে ধরা পড়েন উইকেটরক্ষক জস বাটলারের গ্লাভসে।

ফিল্ড আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনার সিদ্ধান্ত অবশ্য ছিল ‘নট আউট’। যদিও ইংল্যান্ড অধিনায়ক এউইন মরগান রিভিউ নিলে রিপ্লেতে দেখা যায় বল উইলিয়ামসনের ব্যাটে লেগে জমা পড়ে বাটলারের গ্লাভসে। তাতে ৫৩ বলে ২ বাউন্ডারিতে সাজানো ইনিংসটির ইতি ঘটে।

উইলিয়ামসন-নিকোলসের প্রতিরোধ

ফাইনালে ফর্মে ফেরার আশা ছিল মার্টিন গাপটিলের। শুরুটা খারাপ না হলেও আরেকবার ব্যর্থ হয়ে ফিরে তিনি চাপে ফেলে যান দলকে। সেই জায়গা থেকে কিউইদের টেনে তোলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন কেন উইলিয়ামসন ও আরেক ওপেনার হেনরি নিকোলস। তাদের ব্যাটে ১৪তম ওভারে ৫০ ছাড়ায় নিউজিল্যান্ডের স্কোর।

শুরুতেই ফিরলেন গাপটিল

মার্টিন গাপটিল পুরো টুর্নামেন্টে ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। ফাইনালেও ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙতে পারলেন না। সপ্তম ওভারে ক্রিস ওকসের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে ফিরে গেছেন ১৯ রান করে।

রিভিউ নিয়েছিলেন অবশ্য গাপটিল। যদিও ফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই বহাল থাকে। এর আগে ওকসের তৃতীয় ওভারে লেগ বিফোরের সিদ্ধান্তে অনফিল্ড আম্পায়ার আউট দিয়েছিলেন নিকোলসকে। যদিও রিভিউ নিয়ে বেঁচে যায় কিউই এই ওপেনার।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নিউজিল্যান্ড

ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড ফাইনাল দিয়ে পর্দা নামছে ১২তম বিশ্বকাপের। লর্ডসে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। নির্ধারিত সময়ের ১৫ মিনিট পর হয়েছে টস।

লর্ডসের ফাইনাল যে জিতবে ক্রিকেট বিশ্বকাপ দেখবে নতুন ‍চ্যাম্পিয়ন। ক্রিকেট সবশেষ নতুন চ্যাম্পিয়ন দেখেছে ১৯৯৬ সালে, অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে সেবার শিরোপা জিতেছিল শ্রীলঙ্কা। এরপর ঘুরেফিরে পুরোনোরা ফিরে পেয়েছে শ্রেষ্ঠত্ব। গত দুই দশকের ৫ আসরের চারটিই জিতেছে অস্ট্রেলিয়া, একবার ভারত।

ফাইনালে দুই দলের একাদশে পরিবর্তন নেই। সেমিফাইনালের একাদশ নিয়েই শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে নেমেছে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড।

ইংল্যান্ড একাদশ: জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, এউইন মরগান (অধিনায়ক), বেন স্টোকস, জস বাটলার, ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাঙ্কেট, আদিল রশিদ, জোফরা আর্চার, মার্ক উড।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকোলস, কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), রস টেলর, টম ল্যাথাম, জিমি নিশাম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, ম্যাট হেনরি, লকি ফার্গুসন, ট্রেন্ট বোল্ট।

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO