Bangladesh

বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষার পক্ষে সমর্থন চেয়ে অ্যামনেস্টির মিউজিক ভিডিও

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালআন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবস উপলক্ষে একটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। ভিডিওটিতে বাংলাদেশে বসবাসরত রোহিঙ্গা ও স্থানীয় শিশুদের শিক্ষার প্রতি সমর্থন জানাতে বাংলাদেশের জনগণ ও বিশ্ববাসীর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। মিউজিক ভিডিওটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার পক্ষে গান বানিয়ে ইউটিউবে জনপ্রিয় হওয়া বাংলাদেশি হিপ-হপ শিল্পী ও গীতিকার মাহমুদ হাসান ও শিশুশিল্পী রানা মৃধা।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইংরেজি সাবটাইটেলসহ প্রকাশিত হওয়া বাংলা গানটির দুটি পঙ্‌ক্তি এ রকম- ‘আজকের সব শিশু শিক্ষার আলো পেলে আগামীর পৃথিবীর ঝলমলে রূপ, অন্যথা ভুল হবে অন্যায় বেড়ে যাবে পাপীদের দাবানলে রবে নিশ্চুপ।’

গানটিতে কণ্ঠ দেওয়া মাহমুদ হাসান বলেন, ‘যেহেতু মানবতা কোনো জাতি কিংবা সীমানার প্রাচীরে বাঁধা নয়, তাই রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষার জন্য কাজ করাটা আমাদের সকলের দায়িত্ব। এই বিশ্বাসবোধ থেকেই রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষার জন্য গান গাওয়া।’

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক ক্যাম্পেইনার সাদ হাম্মাদি বলেছেন, শিক্ষার সঙ্গে প্রত্যাবাসনের কোনো বিরোধ নেই। বরং যথাযথ ভাষায় মানসম্মত ও স্বীকৃত কারিকুলামে দেওয়া শিক্ষা রোহিঙ্গা শিশুদের নিজেদের অধিকার দাবি করার মতো যোগ্য করে গড়ে তুলতে পারে।

সাদ হাম্মাদি আরও বলেন, ‘বিরাট সংখ্যক শরণার্থী আগমনের কারণে বাংলাদেশ যে সংকটে পতিত হয়েছে, তার দায়িত্ব ভাগ করে নেওয়ার জন্য আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে উৎসাহিত করছি। পাশাপাশি এই সময়টিকে কক্সবাজারের সব শিশুদের শিক্ষা নিশ্চিত করার স্বার্থে কাজে লাগালে তা বাংলাদেশ সরকারের জন্য ইতিবাচক পদক্ষেপ হবে।’

রোহিঙ্গা শরণার্থী ও স্থানীয় শিশুদের শিক্ষা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বিশ্বের বড় বড় দেশগুলোতে ক্যাম্পেইন শুরু করেছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। উভয় সম্প্রদায়ের সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ভাষাগত বৈচিত্র্য রক্ষা করে এমন স্বীকৃত ও মানসম্মত কারিকুলামের অধীনে যথাযথ ভাষায় শিক্ষাদান নিশ্চিত করতে একটি পিটিশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিও আহ্বান জানানো হয়েছে।