Bangladesh
This article was added by the user . TheWorldNews is not responsible for the content of the platform.

মানুষের শরীরের সবচেয়ে নোংরাতম জায়গা কোনটি?

মানুষের শরীরের সবচেয়ে নোংরাতম জায়গা কোনটি?

মানুষের শরীরের সবচেয়ে নোংরাতম জায়গা কোনটি?

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : আপনি যদি সরকারি চাকরির জন্য প্রস্তুতি নেন তাহলে অবশ্যই কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্নগুলি জেনে রাখা উচিত। এছাড়া এগুলি আমাদের নলেজকে বৃদ্ধি করার পাশাপাশি দেশ-বিদেশ সম্পর্কিত নানান তথ্য জানা যায়। এই প্রতিবেদনে তেমন কিছু অজানা প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আসা হয়েছে এক নজরে দেখে নিন।

১) প্রশ্নঃ বিশ্বের কোন দেশে হোটেলে বাঁদর ওয়েটারের কাজ করে?
উত্তরঃ আসলে জাপান দেশের এমন কয়েকটি হোটেল রয়েছে, যেখানে মানুষের বদলে বাঁদরকে ওয়েটারের কাজ করতে দেখা যায়।

২) প্রশ্নঃ মৃত্তিকা সম্পর্কিত পড়াশোনা করাকে কি বলা হয়?
উত্তরঃ মৃত্তিকা সম্পর্কিত পড়াশোনা করাকে পেডোলজি (Pedology) বলা হয়।

৩) প্রশ্নঃ বিছানায় কোন দিকে ফিরে ঘুমালে হজমের সমস্যা কমে?
উত্তরঃ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বামদিকে কাত হয়ে ঘুমালে হজমের সমস্যা কমে, কারণ এর ফলে পেটের উপর চাপ পড়ে না।

৪) প্রশ্নঃ কোন দেশে চা পান করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ?
উত্তরঃ আফ্রিকার পূর্বে অবস্থিত ডিজিবোটি (Djibouti) নামক দেশে চা খাওয়া সম্পূর্ণ অপরাধ, এমনকি এই কাজ করলে জেলও হতে পারে।

৫) প্রশ্নঃ বিশ্বের কোন দেশে সবথেকে বেশি ট্রেন চলে?
উত্তরঃ জাপান হল সেই দেশ যেখানে সবথেকে বেশি ট্রেন চলে।

৬) প্রশ্নঃ কোন রাজকুমার ভারতের বাইরে ও ভেতরে স্বাধীনতা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছিলেন?
উত্তরঃ রাজা মহেন্দ্র প্রতাপ (Mahendra Pratap)।

৭) প্রশ্নঃ মানুষের শরীরের সবচেয়ে নোংরাতম জায়গা কোনটি?
উত্তরঃ নাভি হলো মানুষের সবচেয়ে নোংরাতম জায়গা, কারণ গবেষণায় দেখা গেছে এখানে প্রায় ২০০০ এরও বেশি ব্যাকটেরিয়া বসবাস করে।

৮) প্রশ্নঃ বিশ্বের কোন দেশে ভ্যালেন্টাইন্স ডে (Valentine’s Day) পালন করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ?
উত্তরঃ আমাদের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানে ভ্যালেন্টাইন ডে পালন করা সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ।

৯) প্রশ্নঃ বিশ্বের প্রথম কোন দেশটি ইলেকট্রিক রোড তৈরি করেছে?
উত্তরঃ সুইডেন হলো বিশ্বের প্রথম দেশ যেখানে ইলেকট্রিক রাস্তা তৈরি হয়েছে।

১০) প্রশ্নঃ একজন মানুষ কতদিন কথা না বলে বেঁচে থাকতে পারে?
উত্তরঃ এর নির্দিষ্ট কোন সময় নেই। অনেক সন্ন্যাসী বছরের পর বছর নীরবতা পালন করেন। তবে চিকিৎসকদের মতে, স্বার্থের উপর নানান ভাবে প্রভাব পড়ে। গড়ে একজন মানুষ কথা না বলে কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে।