Bangladesh

শক্তিশালী গণমাধ্যম রাষ্ট্রযন্ত্রকে সঠিকভাবে পরিচালনা করে: স্পিকার

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সাংবাদিকদেরকে জনস্বার্থে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে সংবাদ মাধ্যমকে বিবেচনা করা হয়। শক্তিশালী গণমাধ্যম রাষ্ট্রযন্ত্রকে সঠিকভাবে পরিচালনার চালিকাশক্তি।’ এ সময় তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জনগণকে উজ্জীবিত করতে গণমাধ্যমগুলোকে কাজ করারও আহ্বান জানান।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) বিকালে রাজধানীর কাকরাইলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি-ডিআরইউ’র রজত জয়ন্তীতে ‘বঙ্গবন্ধু-ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড-২০২০’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্পিকার এসব কথা বলেন।

স্পিকার ডিআরইউ’র ২৫ বছর পূর্তিতে রজত জয়ন্তী উদযাপনের এ স্মরণীয় মুহূর্তে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে সম্পৃক্ত সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান এবং তাদের সব কর্মসূচির সফলতা কামনা করেন।

তিনি বলেন,‘গণমাধ্যমে প্রকাশিত বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে পারে। গণমাধ্যম জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য জনমত তৈরিতে এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।’

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ‘ঢাকায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত রিপোর্টারদের অধিকার, পেশাগত উন্নতি আর মর্যাদা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে দীর্ঘ ২৫ বছর প্রতিষ্ঠানটি সুনামের সঙ্গে পথ অতিক্রম করে চলেছে, যা প্রশংসার দাবিদার।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন তথ্য প্রবাহের সুবর্ণ সময় অতিবাহিত করছে। আইসিটি’র সহজলভ্যতার ফলে তথ্য প্রবাহের সুযোগ বৃদ্ধি পেয়েছে।’  নারী এখন সাংবাদিকতাকে চ্যালেঞ্জিং পেশা হিসেবে গ্রহণ করছে, যা সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনে ও নারীর ক্ষমতায়নে ইতিবাচক ভূমিকা রাখছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ১৫ জন সাংবাদিককে ১৪টি বিষয়ে ‘বঙ্গবন্ধু-ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করেন।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন— প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে ‘যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক সমকালের আবু সালেহ রনি। শিক্ষা ক্যাটাগরিতে uncommon reeors in `common abbreviation' শিরোনামে প্রতিবেদনের জন্য দ্য ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেসের  রায়হান এম চৌধুরী,  স্বাস্থ্য ক্যাটাগরিতে  ‘৫০০ টাকার গগলস ৫০০০, ২ হাজারের পিপিই ৪৭০০’ প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক কালের কণ্ঠের আরিফুর রহমান, অনুসন্ধানী রিপোর্ট (উন্মুক্ত) ক্যাটাগরিতে সন্ত্রাসীদের হাতে রাজনীতির ‘চেরাগ’ প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক প্রথম আলোর কামরুল হাসান,  অর্থ-বাণিজ্য ক্যাটাগরিতে ‘ডেসটিনির সম্পদ ১২ ভূতের দখলে!’ প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক ভোরের কাগজের মরিয়ম সেঁজুতি, সেবা খাত ক্যাটাগরিতে ‘ময়লার টাকাও খান কাউন্সিলররা!’ প্রতিবেদনের জন্য বাংলা ট্রিবিউনের  শাহেদ শফিক, ক্রীড়া খাতে ‘পেশাদার লীগে অপেশাদারিত্ব’ শিরোনামে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক নয়াদিগন্তের রফিকুল হায়দার ফরহাদ,  শিল্প-সংস্কৃতি-ঐতিহ্য ক্যাটাগরিতে ‘বিলুপ্তির পথে সিনেমার ব্যানার পেইন্টিং, আঁকিয়েরা ভিন্ন পেশায়’ প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক জনকণ্ঠের মনোয়ার হোসেন, আইন ও মানবাধিকার বিষয়ে ‘হত্যা ধর্ষণের সত্যতা হারিয়ে যায় ফাইনাল রিপোর্টে’ প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক ইত্তেফাকের সমীর কুমার দে বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন।

টেলিভিশন ও রেডিও মিডিয়ায় সেবা খাত ক্যাটাগরিতে ‘ঢাকার বায়ু দূষণ’ নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের জন্য চ্যানেল ২৪ এর মো. মাকসুদ-উন-নবী,  অনুসন্ধানী রিপোর্ট (উন্মুক্ত) ক্যাটাগরিতে  যুগ্ম বিজয়ী হয়েছেন  ‘আপনার এনআইডি কয়টি?’ প্রতিবেদনের জন্য যমুনা টেলিভিশনের মো. আলাউদ্দিন আহমেদ ও ‘খাল-নলকূপ গেল কোথায়?’ প্রতিবেদনের জন্য যমুনা টেলিভিশনের কাজী ইমতিয়াজ আল মোমিন,  অর্থ-বাণিজ্য ক্যাটাগরিতে ‘কর্মসংস্থানে করোনার প্রভাব’ এনটিভির মো. হাসানুল আলম (শাওন),  স্বাস্থ্য ক্যাটাগরিতে  ‘টাকায় মেলে পজিটিভ নেগেটিভ’ প্রতিবেদনের জন্য  যমুনা টেলিভিশনের সাজ্জাদ পারভেজ,  নারী ও শিশু খ্যাক্যাটাগরিতে ‘দাসী নাকি রেমিট্যান্স যোদ্ধা’ প্রতিবেদনের জন্য  নিউজ ২৪ এর আশিকুর রহমান শ্রাবন বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছেন।

ডিআরইউ সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী মন্ত্রী খালিদ মাহমুদ, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ আতিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আনোয়ার হোসেন, ডিআরইউ'র সাবেক সভাপতি ও বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান শাহজাহান সরদার।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ডিআরইউর সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী, শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক হেলিমুল আলম বিপ্লব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা কের সাংগঠনিক সম্পাদক হাবীবুর রহমান।

Football news:

Sami Khedira: If I could move to a Premier League club, I would be happy
Lokomotiv-Salzburg match in the Champions League will be served by the Turkish team of referees
Philippe Coutinho: I am forever grateful for the chance to play for Liverpool in the Premier League. Now focused on Barca
Mijatovic on Real Madrid's loss: Zidane must improve. The team didn't know Alaves' strengths
Frank Lampard: I Respect Mourinho. There will be no results like his if you are not a talented coach
Coutinho on Bayern: Winning the Champions League has always been my big goal. Now I want to take it with Barca
Real Madrid believe that the pressure on the referees affected the work of the referees in the match with Alaves