Bangladesh
This article was added by the user . TheWorldNews is not responsible for the content of the platform.

স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে শিক্ষকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ

স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে শিক্ষকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানের যে সপ্ন, সেটিকে বাস্তবায়ন করতে হলে প্রথমেই দরকার স্মার্ট সিটিজেন। সেই স্মার্ট সিটিজেন তৈরি করার ভিত্তি হলো প্রাথমিক বিদ্যালয়। যেখানে কোমলমতি বাচ্চারা পড়াশুনা করে জ্ঞান অর্জন করে। প্রাথমিকে যদি যথাযথ জ্ঞান অর্জন করতে না পারে সে ভবিষ্যতে কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়। মাধ্যমিকে গিয়ে অনেকেই ঝরে যায়। তাই স্মার্ট নাগরিক তৈরিতে প্রাথমিকের শিক্ষাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে শিক্ষকদের ভূমিকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে পৌর কমিউনিটি সেন্টারে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

ফরহাদ হোসেন আরও বলেন, শিক্ষকদের প্রচেষ্টার ফলে একটি শিক্ষার্থী স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে অবদান রাখতে পারবে। সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর দেয়া হয়েছে। আধুনিক তথ্য প্রযুক্তিমূলক শিক্ষার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের যুক্ত করে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। প্রাথমিক শিক্ষার মাধ্যমেই শিশুদের মেধা ও মননশীলতার বিকাশ ঘটে। তাদের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ভূমিকা সবার আগে। দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার মানোন্নয়ন ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে সরকার সবোর্চ্চ গুরুত্বারোপ করেছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণ করেছেন। পহেলা জানুয়ারি সারাদেশে বই বিতরণে ঐতিহাসিক সাফল্য সারাবিশ্বকে হতবাক করে দিয়েছে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের আয়োজনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক শামীম হোসেন। সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, পুলিশ সুপার রাফিউল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আব্দুল কাদির মিয়া, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার রুহুল আমিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও গাংনী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ খালেক, গাংনী উপজেলার নবীনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তানজিদুর রহমান মুক্তি, সদর উপজেলার শালিকা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম, সদর উপজেলার আলমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কোমর উদ্দিন, গোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আলমগীর হোসেন।

এ সময় মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপপ্রচার সম্পাদক মিজানুর রহমান হিরণ, শ্যামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মতিসহ জেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

কেএমএল