Bangladesh
This article was added by the user . TheWorldNews is not responsible for the content of the platform.

সংখ্যালঘু কমিশন গঠন করা অত্যন্ত জরুরি

সংসদ সদস্য আরমা দত্ত বলেন, চারটি মূলনীতির মধ্যে একটি ছিল ধর্ম নিরপেক্ষতা। ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও অসমাপ্ত কাজ দৃঢ়প্রত্যয়ে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর এত চক্রান্ত। কিন্তু কেন?

দেশকে আফগানিস্তান বানাতে চায়? আমাদের বিভক্তি চায়‌। আমরা বিভক্ত হতে পারবো না। সব চক্রান্ত যখন ফেল করে তখন ধর্মীয় সংখ্যালঘু ও নৃগোষ্ঠীর ওপর হামলা চালায়। এর‌ আগে এর অসংখ্য উদাহরণ রয়েছে।‌ আমাদের পিছপা হলে চলবে না।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি আয়োজিত ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা বিষয়ক আলোচনা সভায় একথা বলেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, সংখ্যালঘু কমিশন গঠন করা অত্যন্ত জরুরি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করতে চান। কিন্তু কিছু মানুষ এর বিরোধিতা করে। সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রয়োজন। সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে ষড়যন্ত্র প্রতিহত করা। ইসির কাছে যেতে হবে। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কতটা বাস্তবায়ন করেছে, আরো কতটা বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন সেসব তুলে ধরা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেছি, ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কমিটি‌ করতে। জামায়াত বিএনপি করবে আর আমরা বসে বসে দেখবো তা হয় না। হতে পারে না। সংবিধান বর্হিভূতভাবে হেট স্পিচ দিয়ে যাচ্ছে। ৩০ লাখ শহীদের রক্ত এই মাটিতে। এই মাটি যেন অপবিত্র না হয়।

এআই