ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্পকে সরকারি অর্থ অপব্যবহারের অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে৷ চার বছর আগে তিনি তার বাবা ট্রাম্পের অভিষেক অনুষ্ঠানের তহবিল থেকে মোটা অঙ্কের টাকা অপব্যবহারে ভূমিকা রেখেছেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে৷

ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল কার্ল রেসিনের কার্যালয় ইভাঙ্কা ট্রাম্পকে জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে৷ গত জানুয়ারিতে কার্ল রেসিন এক মামলায় অভিযোগ করেন, চার বছর আগে প্রেসিডেন্টের অভিষেক অনুষ্ঠানের অলাভজনক তহবিল থেকে বড় অঙ্কের টাকা পরিবারের স্বার্থে ট্রাম্পের রিয়েল এস্টেট ও অন্যান্য ব্যবসার কাজে লাগানো হয়৷

মামলার অভিযোগ অনুযায়ী, তখন করমুক্ত অলাভজনক তহবিলের দায়িত্বে থাকা কর্তৃপক্ষ যুক্তরাষ্ট্রের ৫৮তম প্রেসিডেন্টের অভিষেক অনুষ্ঠান আয়োজনের কমিটির সভা ওয়াশিংটনে ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেলে আহ্বান করে৷ অভিষেকের দিনে ট্রাম্পের বড় তিন সন্তান ডোনাল্ড জুনিয়র, ইভাঙ্কা এবং এরিকের অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানের জন্য সেই হোটেলকে তিন লাখ ডলারেরও বেশি দেয়া হয় বলেও মামলায় অভিযোগ করা হয়৷

এ বছরের শুরুর দিকে ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল কার্ল রেসিন বলেছিলেন, ‘আইন অনুযায়ী অলাভজনক তহবিলের টাকা আইনে বর্ণিত জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট কাজে ব্যয় করার কথা, সেই টাকা কোনো ব্যক্তি বা কোম্পানির লাভের জন্য ব্যয় করা যায় না৷’

ধারণা করা হচ্ছে, ১০ লাখ ডলারেরও বেশি অর্থ ট্রাম্পের পারিবারিক ব্যবসার কাজে লাগানো হয়েছে৷ সেই টাকা উদ্ধারের জন্যই মামলাটি করা হয়েছে৷ হোয়াইট হাউসের মুখপাত্রের কাছে মামলার বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছিল৷ তবে মুখপাত্র এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি৷

এদিকে ট্রাম্পের অভিষেক অনুষ্ঠানের দায়িত্ব পাওয়া কমিটি অবশ্য অলাভজনক তহবিলের টাকা অপব্যবহারের অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷ কমিটির দাবি, তহবিলের টাকা আইন মেনেই খরচ করা হয়েছে এবং যাবতীয় আর্থিক লেনদেন যথাযথ কর্তৃপক্ষকে দিয়ে নিরীক্ষা (অডিট) করানো হয়েছে৷ সূত্র: ডিডব্লিউ, রয়টার্স

অর্থসূচক/এএইচআর