logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

‘আমাকে কেউ বাধা দেয়নি কখনোই’

Walton E-plaza

ক্রীড়া ডেস্ক: ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচেই হারের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সেখান থেকে বাংলাদেশের ত্রাতা হয়ে আবির্ভুত হন তরুণ তুর্কি আফিফ হোসেন ধ্রুব। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। আফিফের ২০০ স্ট্রাইক রেটে ২৬ বলে খেলা ৫২ রানের ইনিংসে ভর করে বাংলাদেশ পেয়েছে স্বস্তির জয়।

ম্যাচ শেষে আফিফ জানিয়েছেন তিনি নিজের মতো করে খেলেছেন। আর এভাবে খেলতেই তিনি স্বাচ্ছন্দবোধ করেন। এক্ষেত্রে তাকে কেউ বাধাও দেয়নি। তবে ম্যাচ শেষ করে আসতে পারেননি বলে কিছুটা আক্ষেপেও পুড়ছেন তিনি।

‘আমার চিন্তা ছিল আমি আমার মতো করে খেলব। পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যাটিং করার চেষ্টা করব। আমি সব সময় আমার মতো করে খেলতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। আমাকে কেউ বাধা দেয়নি কখনোই। নিজের ব্যাটিং নিয়ে অবশ্যই আমি সন্তুষ্ট। ম্যাচ জেতানোর মতো ইনিংস খেলতে পেরেছি। শেষ করে আসতে পারলে আরও ভালো লাগত নিজের কাছে।’

আফিফ যখন ব্যাট করতে নামেন তখন বাংলাদেশের ছয়জন ব্যাটসম্যান সাজঘরে। সাত নম্বরে নামেন তিনি। পরিস্থিতির কারণেই তার উপর চাপ ছিল অনেক। ব্যাটিংয়ে যাওয়ার আগে কিভাবে পরিস্থিতি সামলাবেন সে বিষয়ে কথা হয়েছিল কারো সঙ্গে? আফিফ বলেছেন, ‘আমি ব্যাটিংয়ে যাওয়ার আগে ওরকম কোনো কথা কারো সাথে হয়নি। ম্যাচের আগে সবাই আমাকে বলেছে আমার নিজের মতো করে খেলতে। আমি সেই অনুযায়ী খেলতে পেরেছি। আমরা ম্যাচ জিতেছি ড্রেসিংরুম অনেক উৎফুল্ল ছিল। সেই আনন্দটাই উদযাপন করেছি।’

  ম্যাচের মোমেন্টাম নিয়ে তিনি বলেছেন, ‘মোমেন্টাম প্রথম বলে পরিবর্তন করেছিল অবশ্যই। ওরা চারটা ফিল্ডার বাইরে পেত। কিন্তু তিনটা বাইরে রেখে অ্যাটাক করার চেষ্টা কেরছিল। ওটা পিক করতে পেরেছি। পাশাপাশি বল পিক করতে পেরেছি বলে প্রথম বল থেকে মারতে পেরেছি।’

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯/আমিনুল/নাসিম

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO