logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

আঠারোতেই বাজিমাত ইয়াসিনের

দুই বছর আগে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ জাতীয় দলের অংশ ছিলেন। তার নেতৃত্বে কাতারকে হারিয়ে চমক সৃষ্টি করেছিল বাংলাদেশ। বয়সভিত্তিক দলের গ-ি পেরিয়ে মাত্র আঠারো বছর বয়সে এবার মূল জাতীয় দলে জায়গা করে নিলেন তরুণ লেফটব্যাক ইয়াসিন। বিশ^কাপ বাছাইপর্বে (দ্বিতীয় রাউন্ড) আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ সামনে রেখে ২৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাফুফে। দলের অন্যতম সদস্য সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের ডিফেন্ডার ইয়াসিন।

আগামী ১০ সেপ্টেম্বর তাজিকিস্তানের মাটিতে আফগানদের বিপক্ষে খেলবে জেমি ডের দল। ম্যাচটি সামনে রেখে আজ থেকে শুরু হবে জাতীয় দলের ক্যাম্প। প্রিমিয়ার লিগ শেষে নারায়ণগঞ্জের বাড়িতে বিশ্রামে আছেন ইয়াসিন। দলের অন্য সদস্যের মতো আজ তিনিও ক্যাম্পে যোগ দেবেন। প্রথমবার জাতীয় দলের অংশ হতে পেরে দারুণ খুশি। অনুশীলন ক্যাম্পে নিজের সেরাটা দিতে চান। কোচের মন জয় করে জায়গা করে নিতে চান ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দলে।

সাইফ স্পোর্টিংয়ে জার্সি গায়ে এবার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছেন ইয়াসিন। পেশাদার লিগের প্রথম আসরে খেলতে নেমে সবার নজর কাড়েন। সাইফ এসসিতে ইয়াসিনের পারফরম্যান্স এতটাই দাগ কাটে, জাতীয় দলের স্কোয়াডে রাখতে দ্বিতীয়বার ভাবতে হয়নি জেমি ডেকে। ২০১৭-১৮ মৌসুমে তৃতীয় বিভাগের দল কদমতলার হয়ে খেলেছেন। বছর পেরোতেই তৃতীয় বিভাগ থেকে চলে এসেছেন সরাসরি মর্যাদার প্রিমিয়ার লিগে।

প্রিমিয়ার লিগ খেলার অভিজ্ঞতা ইয়াসিনের কম হলেও বয়সভিত্তিক দলে দীর্ঘদিন ধরেই খেলেছেন হারুনুর রশিদ প্রধান এবং রাবেয়া বেগমের একমাত্র ছেলেসন্তান ইয়াসিন। ২০১৫ সালে অনূর্ধ্ব-১২ দলের হয়ে এবং ২০১৬ সালে অনূর্ধ্ব-১৪ দলের সদস্য হিসেবে মালয়েশিয়ায় মক কাপ জেতার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। এর বাইরে ২০১৬ সালে অনূর্ধ্ব-১৫ দলের হয়ে সাফ এবং ২০১৬ সালে এএফসি কাপে খেলার কথা তো আগেই বলা হয়েছে। জাতীয় দলের অংশ হওয়ার আগে গত মার্চে এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে বাহরাইন সফরের অভিজ্ঞতা রয়েছে ইয়াসিনের। ওই আসরে এ ডিফেন্ডারকে কাছ থেকে পরখ করেছেন বাংলাদেশের প্রধান কোচ জেমি ডে।

সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের মিডফিল্ডার আল আমিন হোসেনের কল্যাণেই মূলত প্রিমিয়ার লিগে সুযোগ পাওয়া ইয়াসিনের। কদমতলার অখ্যাত ডিফেন্ডার ইয়াসিনের ব্যাপারে জ্ঞাত ছিলেন না সাইফের অফিসিয়ালরা। আল আমিনের অনুরোধে ইয়াসিনকে ট্রায়ালে ডাকা হয়। সেখানে নিজের পারফরম্যান্স শো করে সবার মন জিতে নেন। সাইফ কর্তৃপক্ষ তিন বছরের জন্য চুক্তি করে ইয়াসিনের সঙ্গেÑ যার এক বছর ইতোমধ্যে অতিবাহিত হয়েছে। আরও দুই মৌসুম সাইফের জার্সিতে পেশাদার লিগে খেলবেন বাবা, মা এবং এক বোনের আদুরের ভাই ইয়াসিন আরাফাত।

খেলাধুলার পাশাপাশি ইয়াসিনের লেখাপড়াও চলছে সমান তালে। উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে অনার্স প্রথম বর্ষে ভর্তির অপেক্ষায় রয়েছেন। লেখাপড়া করলেও ফুটবলই ধ্যান-জ্ঞান ইয়াসিনের। জাতীয় দলের সাবেক ডিফেন্ডার ওয়ালী ফয়সালের দারুণ ভক্ত তিনি। কাকতালীয়ভাবে ওয়ালীর বাড়িও নারায়ণগঞ্জে। দেশীয় ডিফেন্ডারদের মধ্যে ওয়ালীকে অনুসরণ করলেও বিদেশিদের মধ্যে ব্রাজিলের মার্সেলো দারুণ পছন্দ ইয়াসিনের। জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন এবং এই সুযোগ হেলায় হারাতে চান না। কম করে হলেও টানা দশ বছর লাল-সবুজ জার্সিতে খেলার ইচ্ছার কথা জানান ইয়াসিন।

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO