logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

ভারতের বিশ্বকাপ ব্যর্থতার কারণ জানালেন যুবরাজ

বিশ্বকাপ থেকে হতাশা নিয়েই ফিরেছে ভারত। ছবি: রয়টার্সসেমিফাইনালের লাইনআপ ঠিক হওয়ার পর সবাইকে ভারতকে ফাইনালে তুলে দিয়েছিল। একে তো সবার শীর্ষে থেকে ফাইনালে উঠেছে ভারত, ওদিকে গ্রুপ পর্বের শেষ দিকে এসে ফর্ম হারিয়ে ফেলেছিল নিউজিল্যান্ড। ম্যাচে অবশ্য ওসব ফেবারিট তকমা আর খাটেনি। ভারতকে হারিয়ে আজ ফাইনাল খেলছে নিউজিল্যান্ড।

এখনো ভারতের ক্রিকেটারেরা দেশে ফিরে আসেননি। কিন্তু আলোচনা তো আর থেমে নেই। ভারত কেন পারল না, কেন ফেবারিট হয়ে খেলতে নেমেও ২৪০ রানের লক্ষ্য ছুঁতে পারেনি ভারত—সে আলোচনা চলছে বেশ। বিশ্বকাপ জেতা সাবেক ভারতীয় অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংও জানিয়ে দিয়েছেন কেন ভারত সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিল।

কারণটা অবশ্য সবাই জানেন। বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার বহু আগ থেকেই আলোচনা হচ্ছিল, ভারতের লাইনআপে চারে নামবেন কে? এ প্রশ্নের উত্তর না মেলাতেই নাকি ডুবেছে ভারত, ‘দলের উচিত ছিল কাউকে তৈরি করা। কেউ যদি চার নম্বরে ব্যর্থও হয়, তাকে বলা উচিত ছিল, সমস্যা নেই তুমি বিশ্বকাপে থাকবে। ২০০৩ বিশ্বকাপে আমরা টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার আগে নিউজিল্যান্ডে গিয়েছিলাম। সবাই খারাপ করছিলাম কিন্তু সে দলই বিশ্বকাপে খেলেছিল।’

বিশ্বকাপের আগে চার নম্বরে চার ব্যাটসম্যানকে খেলানোর চেষ্টা করেছিল ভারত। আম্বাতি রাইডু, আজিঙ্কা রাইডু, দিনেশ কার্তিক ও ঋষভ পন্তকে এই পজিশনে খেলিয়েও পরে বিশ্বকাপে নেওয়া হয়েছিল বিজয় শংকরকে। শংকর চোটে পড়ার পর ধাওয়ানের বদলি হিসেবে যাওয়া পন্তকে নামানো হয়েছিল। আর বদলি হিসেবে ডেকে পাঠানো হয়েছিল মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে। রাগে ক্ষোভে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকেই অবসর নিয়ে নিয়েছেন রাইডু।

অথচ বিশ্বকাপের আগেও কোহলি বলেছিলেন চারে রাইডুকেই নামানো হবে, ‘রাইডু তাঁকে দেওয়া সুযোগ কাজে লাগিয়েছে। ওকে বিশ্বকাপ পর্যন্ত আমাদের সমর্থন দেওয়া উচিত। সে ম্যাচ পরিস্থিতি খুব ভালো বুঝে, আমরা খুশি ওর মতো বুদ্ধিমান কেউ চারে ব্যাট করছে।’

২০১৮ এর শেষভাগে বলা এ কথা আর সত্য থাকেনি। টানা কয়েক ম্যাচ ব্যর্থ হওয়ার পর রাইডুকে ছুড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তাঁর বদলে শংকরের মতো একজন অলরাউন্ডারকে খেলিয়েছে ভারত। ফলাফলটাও ভালো হয়নি। ভারতের ওয়ানডে ইতিহাসে চারে নামা অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান যুবরাজ ভারত দলের এমন আচরণে খুব হতাশ, ‘রাইডুর সঙ্গে যা করা হয়েছে, খুবই বাজে। বিশ্বকাপে থাকার কথা ছিল তার। নিউজিল্যান্ডে রান পেয়েছে। কিন্তু তিন বা চার ইনিংস খারাপ করার পরই বাদ দেওয়া হলো। এর পর ঋষভ এল, কিন্তু সেও বাদ পড়ল। ওয়ানডেতে চার খুবই গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। এ পজিশনে ভালো করাতে চাইলে অবশ্যই তাকে সমর্থন দিতে হবে/ প্রতি ম্যাচে ভালো না করলেই তাকে বাদ দেওয়া যাবে না।’

ভারত দলের আসলে কী ধরনের চিন্তাভাবনা ছিল এটা নিয়েও প্রশ্ন আছে যুবরাজের, ‘দল কার্তিককে নিয়েও চেষ্টা করেছে। এরপর আমরা জানতেই পারলাম না চার নিয়ে কী পরিকল্পনা ছিল ওরা শেষে ঋষভকে সুযোগ দিয়েছে এবং সে ভালো করেছে। যদি রোহিত ও বিরাট আগে আউট হলে আমরা বিপদে পড়ব, এবং আমরা সবাই সেটা জানতাম। আমাদের একজন সত্যিকারের চারের ব্যাটসম্যান দরকার ছিল। ওদের ভাবনা কী ছিল আমার মাথায় আসছে না।’

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO