logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

হালুয়া-রুটি ছিটিয়ে বিএনপি গঠন করা হয়েছিল: তথ্যমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, অনেকগুলো কাক নিয়ে জিয়াউর রহমান বিএনপি গঠন করেছিলেন। চট্টগ্রাম শহরের রাস্তায় সকালে হালুয়া-রুটি ছিটিয়ে দিলে কাকের কিন্তু অভাব হয় না। তেমনিভাবে হালুয়া-রুটি ছিটিয়ে বিএনপি গঠন করা হয়েছিল।

বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুরে চট্টগ্রাম নগরের জামালখান রীমা কনভেনশন সেন্টারে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘২০০১ সালে বিএনপি “নিয়ন্ত্রিত” নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছিল। তারা শুধু ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করে। ক্ষমতায় এসে সবকিছু লুটেপুটে খায়। তারা টানা কয়েকবার এদেশকে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন করেছে।’

তিনি বলেন, ‘জনগণের সমর্থন ছাড়া আমরা একদিনও রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকতে চাই না। শেখ হাসিনা জনগণের পাশে আছেন। সেজন্য জনগণও তার পাশে আছে। শেখ হাসিনার কারণেই দল পরপর তিনবার রাষ্ট্রক্ষমতায় এসেছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘শেখ হাসিনার হাতে না থেকে দেশ যদি জেলখানায় যিনি আছেন (বেগম খালেদা জিয়া) তার হাতে যায়, তাহলে দেশ আবারো দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হবে। দেশ আবার পথ হারাবে।’

৭৫-এর প্রসঙ্গ টেনে এনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বলেন, ‘১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার আগ পর্যন্ত কেউ ভাবতে পারেনি, বঙ্গবন্ধুকে কেউ এভাবে হত্যা করতে পারে। সুতরাং পরপর তিনবার রাষ্ট্রক্ষমতায় আছি বলে এমন ভাবার কোনো কারণ নেই যে, দিন সবসময় এমন যাবে। তাই যেকোনো পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। রাজনীতি একটি ব্রত, দেশসেবার ব্রত। আওয়ামী লীগের কর্মীদেরও রাজনীতিকে ব্রত হিসেবে নিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘দল পরপর তিনবার রাষ্ট্রক্ষমতায়। দলে সুযোগসন্ধানী, অনুপ্রবেশকারী ঢুকেছে। তাদের চিহ্নিত করতে হবে। তাদের কারণে দলের বদনাম হচ্ছে। দলে সুযোগসন্ধানীর দরকার নেই। আমাদের সেই কর্মী দরকার, যারা দলের জন্য অন্তঃপ্রাণ।’ চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, সুনীল সরকার ও ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল।

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO