logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

শাহরুখ ও প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে ট্রল

এবার ট্রলের শিকার হলেন শাহরুখ খান ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়াতারকার জীবন যতটা সহজ আর ঝলমলে দেখায়, বাস্তবে ততটা নয়। একবিংশ শতাব্দীতে এসে সেই জীবনকে যেন আরও কঠিন করতেই কোথা থেকে হঠাৎ টুপ করে হাজির হয়েছে ইন্টারনেট। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের মতো শক্তিশালী মাধ্যম সবাই এখন হাতের মুঠোয় বা প্যান্টের পকেটে নিয়ে ঘুরছে। আর বেকারত্ব সমস্যা আগেও ছিল, এখন আরও প্রকট হয়েছে। কথায় বলে, অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা।

সবকিছু মিলিয়ে সময়টা এখন ট্রলের। সুস্থ সমালোচনা এখন তার মাত্রা ছাড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ট্রল, মিম এই শব্দগুলোতে পরিণত হয়েছে। যেকোনো কিছু একটু এদিক সেদিক হলেই মানুষ ঝাঁপিয়ে পড়ছে ট্রল করতে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এখন ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে ট্রলের হাটবাজার হিসেবে। আর সেখান থেকে মুক্তি মেলেনি বলিউডের বাদশাহ শাহরুখ খান বা হলিউড ও বলিউডের তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার।

মাত্রই সুখবরটা পেলেন শাহরুখ খান আর তাঁর ছেলে আরিয়ান খান। ‘দ্য লায়ন কিং’ ছবির রিমেকের হিন্দি ভার্সনে আইকনিক মুফাসা ও সিমবার চরিত্রে কণ্ঠ দেবেন শাহরুখ ও আরিয়ান। আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই শাহরুখ দেখলেন মুদ্রার উল্টো পিঠ। বড় খবরের পরই আবারও তিনি ফিরলেন সংবাদ হয়ে, তবে এবার নেতিবাচক খবর হয়ে। শাহরুখকে বলা হয় ‘দ্য কিং অব বলিউড’ বা বলিউডের বাদশাহ। আর এবার তাঁকে বলা হচ্ছে ‘দ্য কিং অব নেপোটিজম’ বা স্বজপ্রীতির রাজা।

টুইটারে একজন অবাক হয়ে লিখেছেন, ‘ডিজনির ছবিতেও এমন স্বজনপ্রীতি?’ অন্যদিকে আরেকজন ডিজনি ইন্ডিয়াকে ট্যাগ করে প্রশ্ন করেছেন, ‘কোনো অভিশন ছাড়া কোন যোগ্যতায় আরিয়ান খান সিমবার মতো চরিত্র পেয়েছে? তাহলে কি কেবল শাহরুখের ছেলে হওয়াই তাঁর সব যোগ্যতা? স্বজনপ্রীতি কোথায় চলে গেছে!’ আরেকজন লিখেছেন, ‘আরিয়ান খানের সিমবা হওয়া মানি না। কোনো যোগ্যতা নেই, পরিশ্রম নেই, প্যাশন নেই, কিচ্ছু নেই। শুধু নামী একজন বাবা আছেন। আর ডিজনির চোখ নেই? কী লজ্জা!’

এর আগেও শাহরুখের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠেছিল। গত বছর যখন শহরুখের মেয়ে সুহানা খানকে ‘ভোগ’ ম্যাগাজিনের কভার করা হয়, তখনো খেপেছিল অনেকে।

অন্যদিকে শাহরুখের সঙ্গে মাপলে সাবেক বিশ্বসুন্দরী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার ট্রলড হওয়াকে লঘু পাপে গুরু দণ্ডই বলতে হবে। কান, মেট গালা, অ্যামি, গোল্ডেন গ্লোব মাতানো এই ফ্যাশন আইকন ট্রলের শিকার হয়েছেন খাকি রঙের একটা শর্টস পরে। বিশ্বাস করুন বা না-ই করুন, শুধু এর জন্যই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া সমালোচনার বন্যায় ভেসে যাচ্ছেন।

অন্যদিকে প্রিয়াঙ্কাকে দেখা গেছে কালো টি–শার্ট, কালো ব্লেজারের সঙ্গে খাকি শর্টসে। এই খাকি রংই ট্রলকারীদের উসকে দিয়েছে। প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নিয়ে মিম করা হয়েছে, তিনি নাকি এবার রাষ্ট্রীয় সেবক সংঘে (আরএসএস) যোগ দিয়েছেন। প্রিয়াঙ্কা বিতর্কিত এই কট্টর হিন্দু জাতীয়তাবাদী দলে যোগ দেওয়ার পর নিক জোনাসের নাম কী হবে, তা–ও বাতলে দিয়েছেন এক ট্রলকারী। তিনি লিখেছেন, ‘আরএসএসের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কার বৈঠকের পর নিক জোনাসের নাম পাল্টে রাখা হবে নিখিল জোহর।’ খাকি হাফ প্যান্ট পরার অপরাধে আরেকজন প্রিয়াঙ্কার উদ্দেশে লিখেছেন, বিশ্ব ময়দানে বলিউডের এই ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর কি এবার আরএসএসের আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর নির্বাচিত হলেন?

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO