logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo logo
star Bookmark: Tag Tag Tag Tag Tag
Bangladesh

টেস্ট ক্রিকেটের জন্য প্রস্তুত মুমিনুল

অনুশীলনই মূলমন্ত্র মুমিনুল হকের। বাড়তি অনুশীলন করেই নিজেকে খেলার জন্য প্রস্তুত করেছেন তিনি। ছয় মাস পর আবার টেস্ট ক্রিকেট খেলবে বাংলাদেশ। দীর্ঘ দিন পর টেস্ট ক্রিকেট খেলতে নামলেও প্রস্তুত আছেন মুমিনুল। বিশ্বকাপের পর শ্রীলংকা সফরে ওয়ানডে সিরিজ খেলেছেন টাইগাররা। ওয়ানডে দলে না থাকায় এ সময়টা নিজের মতো করেই কাটান বাঁহাতি ব্যাটসম্যান মুমিনুল। সর্বশেষ নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্ট ক্রিকেট খেলেছিলেন তিনি। আগামী ৫ থেকে ৯ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

শুধু টেস্ট নয়, অন্য ফরম্যাটের ক্রিকেটেও নিয়মিত খেলার স্বপ্ন দেখেন ২৭ বছর বয়সী মুমিনুল। গতকাল মিরপুরে অনুশীলন শেষে সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানান, টেস্ট ক্রিকেটে উন্নতি করতে হলে সবসময় অনুশীলন চালিয়ে যেতে হবে। এ কারণেই বাড়তি অনুশীলন করেন তিনি। টেস্ট ক্রিকেটে ভালো খেললে অন্য ফরম্যাটে খেলার দুয়ারও খুলে যাবে বলে মনে করেন এ ব্যাটসম্যান।

আগামী নভেম্বরে ভারতের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হবে বাংলাদেশের। এর আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টে নিজেদের ভালো করে প্রস্তুত করে নেওয়ার সুযোগ দেখছেন মুমিনুল। তিনি বলেন, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আগে এই ম্যাচ আমাদের জন্য ভালো প্রস্তুতি হবে। আমাদের সবার জন্যই এটি ভালো সুযোগ। ভালো একটা টেস্টই হবে আশা করি। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ওদের (আফগানিস্তানের) স্পিন আক্রমণ সামলাতে হবে আমাদের। এটি ভালো প্রস্তুতি হবে। আমরা জানি যে উপমহাদেশে ওদের (আফগানদের) স্পিন আক্রমণ অনেক ভয়ঙ্কর।

আইসিসির নতুন উদ্যোগ বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ বাংলাদেশের জন্য উপকার হবে বলে মনে করেন মুমিনুল। তিনি বলেন, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ হওয়াতে আমাদের দেশের জন্য ভালো হয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে আমি খুব খুশি। কেননা টেস্ট ক্রিকেট আমাদের দেশে মনোযোগ পায় না। এখন পাবে, সেদিক থেকে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য খুব ভালো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ম্যাচ খেললে পারফর্ম করার সুযোগ বাড়বে। ভালো ফল করার সুযোগ থাকে, দলকে ভালো একটি অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ থাকে। র‌্যাংকিংয়ে ওপরের দিকে যাওয়ারও সুযোগ থাকে। এদিক দিয়ে চিন্তা করলে আমার মনে হয়, এটি খুব ভালো একটি মঞ্চ (টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ) আমাদের জন্য।

নতুন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো টাইগারদের সঙ্গে কাজ শুরু করে দিয়েছেন। এ কোচের কাছে প্রত্যাশা প্রসঙ্গে মুমিনুল বলেন, সবার একজন ব্যক্তিগত কোচ থাকে। আমি ওনার (ডমিঙ্গো) কাছ থেকে সবকিছু নেবÑ এমন না বিষয়টি। উনি যে পরামর্শ দেবে, যেটি আমার জন্য দরকার সেটি নেব। আমার যদি ভালো লাগে তা হলে ওভাবে নেব। ক্রিকেটারদের কাছে কোচের কী প্রত্যাশা থাকতে পারে? মুমিনুল বলেন, কোচ কী চাচ্ছে ওটা চিন্তা না করে নিজের কাজ ঠিকভাবে করলেই হয়। যেমন আপনি যদি ফিটনেসের দিক দিয়ে বা ব্যাটিং-বোলিংয়ে ভালো করেন, তা হলে দুনিয়ার যত ভালো কোচ হোক বা যত খারাপ কোচ হোক আপনাকে এমনিতেই নেবে।’

All rights and copyright belongs to author:
Themes
ICO