Bangladesh

যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী শাবানার উপহার গেল কেশবপুরে

শাবানা ও ওয়াহিদ সাদিক এবং যশোরের কেশবপুরে তাঁদের পাঠানো উপহারের প্যাকেট। ছবি-প্রথম আলোদেশে নেই চলচ্চিত্র অভিনেত্রী শাবানা। তো কী হয়েছে। দেশের মানুষের প্রতি ভালোবাসা দেখানোর ইচ্ছা থাকলে তো সাত সমুদ্র তেরো নদীর ওপার থেকেও করা যায়। যুক্তরাষ্ট্রে থাকা দেশের চলচ্চিত্রের বরেণ্য অভিনয়শিল্পী শাবানা তেমনটাই করছেন। এই করোনায় যশোরের কেশবপুরে শ্বশুরবাড়ির এলাকার ৫০০ অসহায় ও অসচ্ছল পরিবারের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী।

পরিবারসহ যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে থাকা বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের বরেণ্য অভিনয়শিল্পী শাবানার ঈদ উপহার এরই মধ্যে পৌঁছে গেল কেশবপুর গ্রামে। গত বৃহস্পতিবার থেকে এলাকাটির ৫০০ পরিবারের কাছে চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ, আলু, চিনি, দুধ, সেমাইসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য প্যাকেটজাত করে পৌঁছে দেওয়ার কাজ করেছেন তাঁর পরিবারে পক্ষের লোকজন। যুক্তরাষ্ট্র থেকে এমনটাই জানিয়েছেন তাঁর প্রযোজক স্বামী ওয়াহিদ সাদিক।
শাবানা বলেন, ‘করোনার কারণে বিপর্যস্ত পৃথিবীর স্বল্প আয়ের মানুষেরা ভীষণ কষ্টে দিন যাপন করছেন। আমার দেশের মানুষদেরও কষ্টের খবর প্রতিনিয়ত পাচ্ছি। সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হচ্ছে। বেসরকারিভাবেও বিভিন্ন সংস্থা দেশের অসহায় ও অসচ্ছল মানুষের পাশে ভালোবাসার হাত বাড়িয়েছে। আমরাও ভাবলাম, আমাদের সামর্থ্যের মধ্যে কিছু নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি নিয়ে কিছু পরিবারের পাশে থাকা দরকার। এতে করে আত্মিকভাবে প্রশান্তি আসবে। সেই চিন্তা থেকে এমন উদ্যোগ নেওয়া। এই কাজে আমার সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা ওয়াহিদ সাদিক সাহেব।’
জানা গেছে, শাবানা ও ওয়াহিদ সাদিক পরিবারের পক্ষের লোকজন কেশবপুরের ৫০০ অসহায় ও অসচ্ছল পরিবারের তালিকা তৈরি করেন। এরপর তালিকা দেখে এই উপহার বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কাজটি করেছেন।
ওয়াহিদ সাদিক বলেন, ‘প্রতিবছরই রোজার ঈদে আমরা এলাকার অসচ্ছল পরিবারের জন্য ভালোবাসার উপহার দিয়ে থাকি। এবার তো ঈদের আগে দেশের মানুষ করোনায় ভীষণ সংকটে দিন পার করছে। তারপর শাবানা ও আমি আলাপ করে ঠিক করলাম, কীভাবে কী করতে পারি। এরপর ঈদের প্রয়োজনীয় সামগ্রীর পাশাপাশি নিত্যপ্রয়োজনীয় আরও কিছু দেওয়ার পরিকল্পনা করি। এই চরম সংকটের দিনে আমাদের এই সামান্য উপহার তাঁদের কিছুদিনের কষ্ট হলেও লাগব করতে পারবে, এটাই শান্তির।’
শাবানা ও ওয়াহিদ সাদিক জানান, শুধু ঈদ নয়, সংকটের এই সময়টা যদি দীর্ঘ হয়, তাহলে ভবিষ্যতেও নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী এলাকার মানুষদের পাশে থাকবেন তাঁরা।
অভিনয় থেকে স্বেচ্ছা অবসরে চলে যাওয়া শাবানা দুই দশকের বেশি সময় ধরে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। তাঁর দুই মেয়ে বিয়ে করে সংসারী। আর স্বামী ও ছেলেকে নিয়ে থাকেন তিনি।

Football news:

Eric Djemba-Djemba: Pogba and Brunu would have sat in the reserves under Scholes and Keane
Klopp on the championship: I would never compare myself to Dalgliesh and Shankly
Dimitar Berbatov: Earlier it was about the championship of Manchester United, now it is about the top 4
Zidane wants to see Mane at Real Madrid, but the club cannot afford this transfer
Manchester United and Manchester City have made inquiries about Griezmann. Barcelona does not want to let him go
Alaba and Coulibaly, among the purposes of the transfer of Guardiola. He wants to start rebuilding at Manchester City
The new Chelsea uniform is inspired by London tailors. With the logo Three, Lampard's team immediately missed out on three from West ham